hms_bangla_logo

  • English
  • বাংলা

হজ্বযাত্রী সংবাদ

 হজে যাওয়ার জন্য প্রথম ধাপ প্রাক্-নিবন্ধন:

সৌদি ‘ই হজ সিস্টেমের’ সঙ্গে সমন্বয়ের জন্য হজযাত্রীদের জন্য প্রাক্-নিবন্ধন পদ্ধতি চালু করা হয়েছে । নিজে অথবা ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত বৈধ হজ এজেন্সির মাধ্যমে প্রাক-নিবন্ধনের প্রথম ধাপ সম্পন্ন করে পেমেন্ট ভাউচারসহ ব্যাংকে টাকা জমা দিন এবং আপনার  প্রাক্-নিবন্ধন সনদ সংগ্রহ করুন । প্রতি বছরে সৌদি সরকারের সাথে চুক্তি মোতাবেক নির্ধারিত কোটা অনুযায়ী জাতীয় হজ ও ওমরাহ নীতির ধারার ভিত্তিতে হজযাত্রীদের নিবন্ধন সম্পন্ন হবে । প্রাক্-নিবন্ধন সংক্রান্ত কোন তথ্য জানার প্রয়োজন হলে ০৯৬০২৬৬৬৭০৭ নম্বরে টেলিফোনে যোগাযোগ করতে পারবেন ।

প্রাক্-নিবন্ধন সংক্রান্ত তথ্য ও সহায়তার জন্য উপরের লিংকটিতে ক্লিক করুন।

প্রাক্-নিবন্ধন করতে যা লাগবে:

  • জাতীয় পরিচয়পত্র, (১৮ বছরের নিচে বয়স যাদের, জাতীয় পরিচয়পত্র নেই সেক্ষেত্রে অভিভাবকের সঙ্গে  জন্ম  নিবন্ধন সনদ দিয়ে প্রাক নিবন্ধন করতে পারবেন) ।
  • মোবাইল নম্বর (যেখানে এসএমএস পাবেন)
  • সরকারি ব্যবস্থাপনার জন্য ৩০,০০০(ত্রিশ হাজার টাকা), বেসরকারি ব্যবস্থাপনার জন্য ৩০,৭৫২ (ত্রিশ হাজার সাতশত বায়ান্ন) টাকা জমা দিতে হবে ।

যেখানে প্রাক্-নিবন্ধন করা যাবে:

  • ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রে
  • জেলা প্রশাসকের কার্যালয়
  • ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যালয়
  • ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অনুমোদিত বৈধ হজ এজেন্সি
  • পরিচালক, হজ অফিস, আশকোনা, ঢাকা

এর যেকোনো এক জায়গা থেকে  হজযাত্রী নিজে অথবা তার প্রতিনিধি প্রাক্-নিবন্ধন করতে পারবেন  ।

ধাপে ধাপে প্রাক্-নিবন্ধন:

প্রাক্-নিবন্ধনের প্রথম ধাপে জাতীয় পরিচয়পত্র তথ্য ভান্ডার থেকে (নাম, পিতার নাম, মাতার নাম,  পেশা, জন্মতারিখ, স্থায়ী ঠিকানা, নারী/পুরুষ, বৈবাহিক অবস্থা) তথ্য স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে যাচাই হবে ।

হজযাত্রী সরকারি নাকি বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে ইচ্ছুক সে সংক্রান্ত  তথ্য ।

ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়ার জন্য ট্র্যাকিং নম্বরসংবলিত প্রিন্ট করা পেমেন্ট ভাইচারসহ সরকার নির্ধারিত ব্যাংকে (তালিকা পরে জানানো হবে) সরকারি ব্যবস্থাপনার জন্য ৩০,০০০ (ত্রিশ হাজার টাকা),  বেসরকারি ব্যবস্থাপনার জন্য ৩০,৭৫২ (ত্রিশ হাজার সাতশত বায়ান্ন) টাকা জমা দিতে হবে ।

(উল্লেখ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে টাকা জমা না দিলে পুনরায় প্রাক-নিবন্ধন করতে হবে।)

ব্যাংক টাকা পরিশোধের পর ব্যাংক থেকে হজের প্রাক্-নিবন্ধন সনদ দেওয়া হবে। (প্রাক নিবন্ধন সনদে জাতীয় পরিচয়পত্র তথ্য, প্রাক্-নিবন্ধন নম্বর, পাসপোর্টের তথ্য, ব্যাংকে টাকা জমা দেওয়া বিবরণ থাকবে) একই সঙ্গে হজযাত্রীর মোবাইল নম্বরে এসএমএস প্রেরণ করে প্রাক নিবন্ধন নিশ্চিত করা হবে ।

জাতীয় হজ নীতির আলোকে প্রাক্-নিবন্ধন নম্বর চলতি বছর হজে যাওয়ার জন্য নির্বাচিত হলে হজযাত্রীর মোবাইলে এসএমএস দেওয়া হবে ।

হজে যাওয়ার জন্য নির্বাচিত হলে হজযাত্রীর মোবাইলে এসএমএস পাওয়ার পর (নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হবে)।  নির্ধারিত সময়ের মধ্যে হজ অফিস/ সংশ্লিষ্ট এজেন্সি প্রাক-নিবন্ধন তথ্য ভান্ডার থেকে হজ যাত্রীদের আবেদন অনলাইনে গ্রহণ করে প্যাকেজের সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ পরিশোধিত মর্মে হজ অফিস/ সংশ্লিষ্ট  হজ এজেন্সি নিশ্চিত করলে পিলগ্রিম আইডি (PID) তৈরি হবে। সম্পূর্ন টাকা পরিশোধ করলে হজযাত্রীর মোবাইল নম্বরে এসএমএস প্রেরণ করে PID নিশ্চিত করা হবে। হজে যাওয়ার জন্য পিলগ্রিম আইডি অত্যাবশক ।

হজযাত্রীকে প্রদত্ত প্রাক পরিবর্তনযোগ্য প্রাক- নিবন্ধন নম্বর (serial) কোনভাবেই পরিবর্তনযোগ্য নয়। তাই হজে যাওয়ার প্রথম ধাপ  প্রাক্-নিবন্ধন করুন ।

প্রাক্-নিবন্ধনে প্রাপ্ত তথ্যাদি পুলিশের বিশেষ শাখার মাধ্যমে যাচাই করা হবে ।

প্রাক্-নিবন্ধন বাতিল করতে চাইলে

প্রাক্-নিবন্ধন করে যদি হজে গমন না করেন তাহলে হজযাত্রীর অগ্রীম জমাকৃত জামানত থেকে সার্ভিস চার্জ ২ হাজার এবং প্রসেসিং ফি বাবদ ৩ হাজার  মোট ৫ হাজার টাকা বাদ দিয়ে বাকি টাকা ফেরত পাবেন ।

১৮ বছরের নিচে বয়স যাদের

১৮ বছরের নিচে বয়স যাদের, জাতীয় পরিচয়পত্র নাই সেক্ষেত্রে অভিভাবকের সঙ্গে জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে প্রাক্-নিবন্ধন করতে পারবেন। ও পুলিশের বিশেষ শাখার মাধ্যমে যাচাই করা হবে ।


বাংলাদেশের হজ্জযাত্রীবাহী প্রথম ফ্লাইট সৌদি পৌছেছে।

আগস্ট 17, 2015

বাংলাদেশের হজ্জযাত্রীবাহী প্রথম ফ্লাইট বিজি ১০১১ আজ ১৬ই আগষ্ট, ২০১৫ ইং তারিখ সৌদি সময় দূপুর ১২:১০ ঘটিকায় সৌদি আরবের কিং আব্দুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে ৪১৭ জন হজ্জযাত্রী নিয়ে অবতরণ করেছে। এ সময় সেৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশের মান্যবর আ্যম্বাসেডর, জেদ্দাস্থ কনসাল জেনারেল এবং কাউন্সিলর হজ্জ প্রমুখ কর্মকর্তা বাংলাদেশের হজ্জযাত্রীদের বিমান বন্দরে স্বাগত জানান।

হজ্জ ২০১৫ সালের ডাটা এন্ট্রির বিষয়ে নোটিস/প্রজ্ঞপ্তি সমূহ

আগস্ট 18, 2015

হজ্জ ২০১৫ সালের ডাটা এন্ট্রির বিষয়ে প্রশ্নের ব্যাপারে সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে:

সৌদি কর্তৃপক্ষের হজ্জ কার্যক্রমের সাথে সমন্বেয়ের জন্য এ বছর বেশ আগে ডাটা এন্ট্রির কাজ শুরু হয়েছে এবং মাননীয় মন্ত্রী, ধর্ম মন্ত্রণালয় আনুষ্ঠানিকভাবে ২১ জানুয়ারী, ২০১৫ তারিখে হজযাত্রী নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করেন।
২০১৫খ্রিঃ/১৪৩৬ হিজরী সনের অনলাইনে হজ্জযাত্রীদের ডাটা এন্ট্রির শুভ উদ্ভোধন

 

যে সমস্থ হজযাত্রী বেসরকারী ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন ফর্ম পুরন করেছেন, তাদের পক্ষে সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্সি নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। সমস্থ নিবন্ধন কার্যক্রম ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় এর হজ ব্যবস্থাপনা ইনফরমেশন সিস্টেম (www.hajj.gov.bd) এ নিবন্ধিত হয়েছে, যেখানে প্রতিটি হজ এজেন্সির হজযাত্রী নিবন্ধনের জন্য আলাদা করে নিজস্ব কন্ট্রোল প্যানেল রয়েছে। অন্যান্য বছরের মত, এ বছরও ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় (www.hajj.gov.bd) এর হজযাত্রী নিবন্ধন প্রক্রিয়ার জন্য প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করা হয়েছে। বিভিন্ন এজেন্সিসমূহের কর্মকর্তাবৃন্দ উক্ত প্রশিক্ষণ কর্মসূচীতে বা অনেকে প্রয়োজনীয় কারিগরি সহযোগিতা গ্রহণ করেছেন। ৯৩০ টি এজেন্সি কে তাহাদের নিবন্ধন কার্যক্রম করার জন্য ইউজার নাম এবং পাসওয়ার্ড দেওয়া হয়।

২০১৫ (১৪৩৬ হিজরী ) সালের হজ্জ সংক্রান্ত আইটি প্রশিক্ষণ প্রসঙ্গে ।

প্রতিটি হজ্জ এজেন্সীকে তার নিজস্ব কন্ট্রোল প্যানেলে হজ্জযাত্রী ডাটা এন্ট্রির তাৎক্ষনিক সংখ্যা সিস্টেম হতে প্রদর্শন করা হয়েছে যাতে তারা ডাটা এন্ট্রির অগ্রগতি জানতে পারেন। এ ছাড়াও, ডাটা এন্ট্রির অগ্রগতি সম্বন্ধে ১৪ই ফেব্রুয়ারী একটি বিশেষ সংবাদ সকলের জন্য প্রকাশ করা হয়।
হজ্জ ব্যবস্থাপনা সিস্টেমে (HMIS) এন্ট্রিকৃত হজ্জযাত্রীদের তথ্য প্রসঙ্গে

এর ধারাবাহিকতায়, ১৯ ফেব্রুয়ারী পরিচালক, হজ্জ স্বাক্ষরিত একটি পত্রে ডাটা এন্ট্রির অগ্রগতি সমস্ত হজ্জ এজেন্সীকে অবগত করেন ।
২০১৫খ্রিঃ/১৪৩৬ হিজরী সনের হজ্জযাত্রীদের ডাটা এন্ট্রির সংক্রান্ত জরুরী বিজ্ঞপ্তি।

পরবর্তিতে পরিচালক হজ্জ ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫ ইং তারিখে ২০১৫ সনের বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজ্জযাত্রীদের কোটা পরিপূর্ণ হওয়া বিষয়ে মন্ত্রণালয়ে একটি পত্র প্রদান করেন। ডাটা এন্ট্রি কার্যক্রম বন্ধ হওয়ার সাথে সাথে হজ্জের তথ্য ডাটা এন্ট্রির দিনওয়ারী তালিকা সকলের জন্য ওয়েবসাইটে প্রদান করা হয়, যাতে কোনরকম বিভ্রান্তির সৃষ্টি না হয়।
২০১৫ খ্রিঃ (১৪৩৬ হিজরী) সনে এজেন্সী অনুযায়ী হজ্জযাত্রীদের ডাটা এন্ট্রির পরিসংখ্যান।

হজযাত্রীদের ডাটাবেজ এ যে সকল হজযাত্রীর নাম সংশ্লিষ্ট হজ এজেন্সীরা সরাসরি ডাটা এন্ট্রি করেন, সেক্ষেত্রে কোনো যাচাইকরণ ব্যবস্থা থাকে না । এ কারণে, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে নিয়োজিত আইটি প্রতিষ্ঠান বিজনেস অটোমেশন লিমিটেড ২০১৩ সালের ২৫ আগস্ট জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে হজযাত্রীদের নাম অনলাইনে সরাসরি যাচাই করার প্রস্তাব পাঠায় ধর্ম মন্ত্রণালয়ে। পরর্বতী সময়ে ধর্ম মন্ত্রণালয় বিষয়টি নিয়ে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে বৈঠক করেন। বৈঠকে হজযাত্রীর নাম নিবন্ধনকালে জাতীয় পরিচয়পত্রের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের প্রস্তাবে ২০১৫ সালের ২৩ জুন তারিখে সম্মতি দেয় নির্বাচন কমিশন। ফলে, ২০১৫ সালের জানুয়ারী মাসে ডাটা এন্ট্রি শুরু করার কারণে এবছর এটি বাস্তবায়ন করা যায়নি ।

পরবর্তীতে দ্বিপক্ষীয় দাপ্তরিক কার্যাদি ও প্রয়োজনীয় কারিগরি অবকাঠামো নির্মাণের পর ভবিষ্যতে এজেন্সী মালিকরা হজযাত্রীদের নাম অনলাইনে ডাটা এন্ট্রি করলে তা জাতীয় পরিচয়পত্রের সঙ্গে অনলাইনে যাচাই করা সম্ভব হবে। আশা করা যাচ্ছে যে ভবিষ্যতে  উভয়পক্ষের প্রয়োজনীয় কারিগরী অবকাঠামোর চুড়ান্ত হবার পর ভূল নাম ডাটাএন্ট্রি করা সম্ভব হবে না। এ সংক্রান্ত প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হওয়ার পরই এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে সকলকে অবহিত করা হবে ।

বিজি-৫০১৭ ফ্লাইটের হজ্জযাত্রীদের নোটিশ

আগস্ট 18, 2015

সরকারী ব্যবস্থাপনায় ১৯-০৮-২০১৫ খ্রিঃ তারিখ ভোর ০৫.৪৫ মিনিটে গমনেচ্ছু বিজি-৫০১৭ ফ্লাইটের হজ্জযাত্রীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, উক্ত ফ্লাইটের সকল হজ্জযাত্রীগণকে আজ (১৮-০৮-২০১৫) রাত ০৮.০০ টার সময় লাগেজ-পত্রসহ হজ্জক্যাম্পে উপস্থিত থাকার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

সৌদি আরবের eHaj সিস্টেমে ভিসার ফটো প্রসঙ্গে।

আগস্ট 16, 2015

অনেক সম্মানিত হজ্জ এজেন্সীদের উপরোক্ত বিষয়ে প্রশ্নের ব্যাপারে জরুরী ভাবে অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে:
ভিসা প্রক্রিয়াকরণ এর জন্য এজেন্সীগণ সৌদি আরবের হজ্জ ব্যবস্থাপনা সিস্টেম (eHaj System) নিয়মাবলী অনুযায়ী পাসপোর্ট স্ক্যানিং করে হজ্জযাত্রীদের ডাটা এন্ট্রি সম্পাদন করেছেন এবং সৌদি eHaj System এর নিয়ম অনুযায়ী ফটো 50KB সাইজ এর মধ্যে নির্ধারিত ফরমেট এ ( .jpeg/ .jpg /.png/ .gif) ফরমেটে ফটো আপলোড করে ভিসা প্রক্রিয়া সম্পাদন করার নিয়ম থাকলেও, আমাদের সাম্প্রতিক অভিজ্ঞতার আলোকে দেখা যাচ্ছে যে, সৌদি দূতাবাসের ভিসা প্রিটিং সিস্টেমে সৌদি আরবের eHaj সিস্টেমের অনুমোদিত ফটো কিছু কিছু ক্ষেত্রে ভিসার জন্য প্রিন্ট করা সম্ভব হচ্ছে না।

আপনারা যারা এখনও আপনাদের হজ্জযাত্রীদের ভিসা আবেদন অনলাইনে (Sent to MOFA) করেননি, তারা অনুগ্রহ করে সৌদি দূতাবাসের পছন্দ অনুযায়ী 5-8 KB এবং শুধু .jpg ফটো আপডেট করবেন। আপনারা অবশ্যই কাজটি করার সময় Firefox internet ব্রাউজার ব্যবহার করবেন।

এ বিষয় নিয়ে IT Help Desk থেকে সৌদি eHaj System এ ফটো সাইজ এর সাথে সৌদি MOFA System এর ফটোর জটিলতা তুলে ধরে কয়েক দফা ব্যাখ্যার পরে সৌদি eHaj ( SejelTech, IT Vendor for eHaj system) কর্তৃপক্ষ যে সকল হজ্জযাত্রীদের ফটো তারা অনুমোদন করেছেন অথচ তা MOFA এর জন্য প্রিন্ট করতে পারবেন না, সে সকল ফটো সংশোধন করে দেয়ার সফটওয়্যারে প্রয়োজনীয় সংশোধন আগামী ৪৮ ঘন্টায় করবেন বলে IT Help Desk কে অবগত করেছেন। এ ব্যাপারে IT Help Desk এর পক্ষ থেকে SejelTech এর সাথে প্রয়োজনীয় যোগাযোগ অব্যহত রাখবেন, যাতে SejelTech তাদের কারীগরি বিষয়টি আপডেট করেন। এ ব্যাপারে কোনো নতুন অগ্রগতি হলে তা সাথে সাথে জানানো হবে।

Haj visa form

২০১৫ ইং (১৪৩৬ হিজরী ) সালের হজ্জ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা

আগস্ট 13, 2015

১৩ আগষ্ট ২০১৫ ইং, ২৭ শাওয়াল ১৪৩৬ হিজরী দুপুর ১২ ঘটিকায় আশকোনাস্থ হজ্জ অফিসে ২০১৫ ইং সালের হজ্জ কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন ঘোষনা ও হজ্জযাত্রীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা । এ ছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব রাশেদ খান মেনন, এম পি, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন এম,পি, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি জনাব বজলুল হক হারুন, এম,পি, বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফের্য়ার্স এবং ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. চৌধুরী মোঃ বাবুল হাসান । অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান । উল্লেখ্য যে, ১৬ আগষ্ট হজ্জ ২০১৫ ইং সালের প্রথম হজ্জ ফ্লাইট সৌদি আরবের উদ্দেশ্যে হযরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমান বন্দর ছেড়ে যাবে ।

pmpm11

২০১৫ সালের হজ্জ মৌসুমে হজ্জযাত্রীদের সাথে ব্যক্তিগত ঔষুধ বহন

আগস্ট 10, 2015

সূত্রঃ ১। হজ্জ অফিস , জেদ্দার পত্র নং-বাহমি/হউ/ক্লিনিক-০১/২০১৩/২৫৯,তারিখ-০৬.০৮.২০১৫ খ্রিঃ
২। ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পত্র নং-১৬.০০.০০০০.০৩.১৮.০৫.১৪-১২০৭,তারিখ-৯/৮/১৫ খ্রিঃ
উপর্যুক্ত বিষয় ও সূত্রের পরিপ্রেক্ষিতে সকল হজ্জযাত্রী এবং হজ্জ এজেন্সীর অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে,২০১৫- সালের হজ্জ মৌসুমে বাংলাদেশ হতে হজ্জে গনমকারী হজ্জযাত্রীদের সাথে ব্যক্তিগত ঔষধ বহনের ক্ষেত্রে ডাক্তারের লিখিত প্রেসক্রিপশন অবশ্যই সঙ্গে নিতে হবে।ডাক্তরের লিখিত প্রেসক্রিপশন ব্যতিত প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোন প্রকার ঔষধ সঙ্গে নেওয়া যাবে না। সকল হজ্জযাত্রীকে ঘুমের ঔষধ বহনের ক্ষেত্রে অবশ্যই সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। রেজিস্টার্ড ডাক্তারের প্রেসক্রিপশনের বাহিরে অতিরিক্ত ঘুমের ঔষধ বহন করা রাজকীয় সৌদি সরকারের আইনে অমার্জনীয় অপরাধ। বর্ণিতাবস্থায়, সকল হজ্জ এজেন্সীর হজ্জযাত্রীদের কে রাজকীয় সৌদি সরকারের নিয়ম-নীতি অনুসরণপূর্বক প্রয়োজনীয় ঔষধ বহন করার জন্য পরামর্শ দেয়া হলো ।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

সৌদি আরবে হজ্জ চিকিৎসক দল-২০১৫ প্রেরণ প্রসঙ্গে।

জুলাই 27, 2015

২০১৫ খ্রিঃ/১৪৩৬ হিজরী সনের হজ্জ মৌসুমে সৌদি আরবে অসুস্থ বাংলাদেশী হজ্জযাত্রীদের চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্য নিম্নোক্ত চিকিৎসক, ফার্মাসিস্ট, নার্স/ব্রাদার ও সহায়তাকারীর সমন্বয়ে  হজ্জ চিকিৎসক দল-২০১৫ খ্রিঃ/১৪৩৬ হিজরী  দল গঠন করা হয়েছে । হজ্জ চিকিৎসক দলের সদস্যগণ প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতিয় ব্যাচে পর্যায়ক্রমে তাঁদের নামের বিপরীতে উল্লেখিত তারিখ অনুযায়ী বিমানের ফ্লাইট প্রাপ্তি সাপেক্ষে সৌদি আরব গমনাগমন করবেন এবং দায়িত্ব পালন শেষে বাংলাদেশে প্রত্যাবর্তন করবেন।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

বিজ্ঞপ্তি

আগস্ট 9, 2015

আগামী  ১৩/০৮/২০১৫ খ্রিঃ তারিখ সকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী  হজ্জ-২০১৫ এর শুভ উদ্বোধন এবং সম্মানিত হজ্জযাত্রীগণের সাথে কুশল বিনিময় করবেন । বিধায় , যে সকল সম্মানিত হজ্জযাত্রী  বিমান সিডিউল অনুযায়ী আগামী  ১২/০৮/২০১৫ খ্রিঃ তারিখ হজ্জ-ক্যাম্পে রিপোর্ট করার জন্য মোবাইল এস এম এস (SMS) প্রাপ্ত হবেন, তাদের কে অবশ্যই ধার্যকৃত ১২/০৮/২০১৫ খ্রিঃ তারিখ সকাল ৯.০০ ঘটিকায় হজ্জ-ক্যাম্পে রিপোর্ট করার জন্য অনুরোধ করা হল ।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

সরকারী হজ্জযাত্রীদের গাইড নিয়োগ সংক্রান্ত অফিস আদেশ

আগস্ট 5, 2015

জাতীয় হজ্জ ও ওমরাহ নীতি-১৪৩৫ হিরজী/২০১৪ খ্রিঃ এর ৯.৪.১ অনুচ্ছেদ এবং হজ্জ গাইড নির্বাচন সংক্রান্ত পরিপত্র অনুযায়ী নিম্নবর্ণিত ব্যক্তিবর্গকে উল্লিখিত শর্তে ১৪৩৬ হিজরী সনে ৯ই জিলহজ্জ (সৌদি আরবে চাঁদ দেখা সাপেক্ষ্যে ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৫) তারিখে অনুষ্ঠিতব্য হজ্জে সরকারী ব্যবস্থাপনাধীন হজ্জযাত্রীদের গাইড করা এবং মাশয়ারালে হারাম (তথা মীনা, মুযদালিফা ও আরাফাতে) বাংলাদেশ সরকারের সরকারী ব্যবস্থাপনার সম্মানিত হজ্জযাত্রী এবং সরকার কর্তৃক মনোনীত ডেলিগেশন টীম, হজ্জ প্রশাসনিক টীম,  হজ্জ মেডিকেল টীম, রাষ্ট্রীয় খরচে হজ্জ পালনকারী টীমের সম্মানিত সদস্যগণের পবিত্র হজ্জের আরকান আহকাম পালন, চলাচল পরিক্রমা এবং স্বাস্থ্য সেবায় প্রয়োজনীয় সেবা প্রদানের লক্ষ্যে হজ্জ গাইড হিসেবে নিয়োগ করা হ’ল ।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

২০১৫ সালের সরকারী ব্যবস্থাপনার সকল হজ্জযাত্রীদের ফ্লাইট সিডিউল (সংশোধিত)।

আগস্ট 8, 2015

সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, ২০১৫ সালের সরকারী ব্যবস্থাপনার সকল হজ্জযাত্রীদের ফ্লাইট সিডিউলটি সংশোধন করা হয়েছে । সংশোধিত ফ্লাইট সিডিউলটি নিম্ন থেকে ডাউনলোড করে দেখুন।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

২০১৫ সনের হজ্জযাত্রীদের পুলিশ ভেরিফিকেশন প্রকাশকরন

আগস্ট 4, 2015

উপর্যুক্ত বিষয়ের পরিপ্রেক্ষিতে জানানো যাচ্ছে যে, বাংলাদেশ পুলিশ, স্পেশাল ব্রাঞ্চ, ঢাকা হতে প্রাপ্ত (আংশিক) ২০১৫ সনের হজ্জে গমনেচ্ছু হজ্জযাত্রীদের পুলিশ ভেরিফিকেশন তালিকা প্রকাশ করা হ’ল । পরবর্তি অংশ বাংলাদেশ পুলিশ, স্পেশাল ব্রাঞ্চ থেকে প্রাপ্তি সাপেক্ষে প্রকাশ করা হবে ।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন

২০১৫ সালের সরকারী ব্যবস্থাপনার সকল হজ্জযাত্রীদের ফ্লাইট সিডিউল।

আগস্ট 4, 2015

সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, ২০১৫ সালের সরকারী ব্যবস্থাপনার সকল হজ্জযাত্রীদের ফ্লাইট সিডিউল  হয়েছে । ফ্লাইট সিডিউলটি নিম্ন থেকে ডাউনলোড করে দেখুন।

বিস্তারিত তথ্য ডাউনলোড করার জন্য এইখানে ক্লিক করুন